গার্মেন্ট খোলার পরদিনই নারায়ণগঞ্জে করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা বাড়ল

নারায়ণগঞ্জে একদিনে করোনাভাইরাসে সর্বোচ্চ ৮৪ জন আক্রান্ত হয়েছেন ৷ গত ২৪ ঘণ্টায় এ ৮৪ জন আক্রান্ত হন। গার্মেন্টস খোলার পরদিনই আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে যায়। এ নিয়ে জেলায় করোনাভাইরাসে আক্রান্ত মোট ৭৪২ জন। তবে নতুন করে করোনায় কারও মৃত্যু হয়নি৷ করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে এ পর্যন্ত নারায়ণগঞ্জে মারা গেছেন ৪২ জন। মঙ্গলবার (২৮ এপ্রিল) দুপুরে জেলা স্বাস্থ্য বিভাগ থেকে এসব তথ্য জানানো হয়। এর আগে সোমবার পর্যন্ত আক্রান্তের সংখ্যা ছিল ৬৫৮ জন।

জেলা স্বাস্থ্য বিভাগ সূত্রে জানা যায়, সিটি করপোরেশন এলাকায় করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন ২৮ জন। পাশাপাশি আক্রান্ত হয়েছেন ৫০৪ জন। অন্যদিকে সদর উপজেলায় মারা গেছেন ১০ জন ও আক্রান্ত ১৮৬ জন। বন্দর উপজেলার পাঁচ ইউনিয়নে আক্রান্তের সংখ্যা ১০ ও মারা গেছেন একজন। আড়াইহাজার উপজেলায় আক্রান্ত ১৬, সোনারগাঁয়ে ১৬ ও মারা গেছেন দুজন এবং রূপগঞ্জে মারা গেছেন একজন ও আক্রান্ত ১০ জন।

জেলা স্বাস্থ্য বিভাগের তথ্যমতে, এ পর্যন্ত জেলায় মোট ২ হাজার ৪২৩ জনের নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে। গত ২৪ ঘণ্টায় নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে ১৬০ জনের। জেলায় এ পর্যন্ত করোনায় আক্রান্ত থেকে সুস্থ হয়ে বাসায় ফিরেছেন ৩০ জন। এর মধ্যে সিটি করপোরেশন এলাকার ১৮ জন, সদর উপজেলার আট, রূপগঞ্জে এক এবং আড়াইহাজারের তিনজন। নারায়ণগঞ্জ জেলা সিভিল সার্জন ডা. ইমতিয়াজ আহমেদ বলেন, নারায়ণগঞ্জে এ পর্যন্ত ৭৪২ জন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। গত ২৪ ঘণ্টায় সর্বোচ্চ ৮৪ জন আক্রান্ত হন।

শেয়ার করুনঃ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *