1. km.mintu.savar@gmail.com : admin :
  2. coderbruh@protonmail.com : demilation :
  3. editor@biplobiderbarta.com : editor :
  4. same@wpsupportte.com : same :
শিরোনাম:
আশুলিয়ায় টিচার্স আইডিয়াল স্কুল এন্ড কলেজের শিক্ষার মান উন্নয়নে অবিভাবক সমাবেশ অনুষ্ঠিত । তাজরীন গার্মেন্টস এর মালিক দেলোয়ার হোসেনকে শাস্তি দেওয়া পরিবর্তে তাকে পুরস্কৃত করা হয়েছে বিপ্লবের জগতে এক অগ্নিসম অগ্রদূতের নাম ফিদেল কাস্ত্রো পাবনার সাঁথিয়ায় শীত যতই জেঁকে বসছে ব্যস্ততা বেড়েছে লেপ-তোষকের কারিগরের || খেলার নামে যারা জনগণের সাথে ফাউল করে তাদের লাল কার্ড দেখাতে হবে কমিউনিস্টরা ছলচাতুরী করতে পারে ভাবতে পারিনি-ইদ্রীস আলী রেকার বিলের নাম করে রিক্সা চালকদের কাছ থেকে জোর করে চাঁদা আদায় বন্ধ করতে হবে পাবনার কাশিনাথপুরে প্রধান শিক্ষক পারভীন জাহানের বিদায় সংবর্ধনা অনুষ্ঠিত || নারীর শিক্ষা ও অর্থনৈতিক সক্ষমতা সবকিছুর ঊর্ধ্বে: স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী পাবনার কাশিনাথপুরে অ্যাসোসিয়েশন অফ সৌখিন ফুটবল ক্লাব উদ্বোধন উপলক্ষে আনন্দ র‍্যালী অনুষ্ঠিত

বিধিনিষেধ চলাকালে শ্রমিকদের মাসে ৩ হাজার টাকা ঝুঁকি ভাতা দেওয়ার দাবি

বিপ্লবীদের বার্তা
  • প্রকাশ : মঙ্গলবার, ৩ আগস্ট, ২০২১
  • ৫৬৬ বার পড়া হয়েছে

বিধিনিষেধ চলাকালে রপ্তানিমুখী তৈরি পোশাক কারখানায় কর্মরত শ্রমিকদের মাসে তিন হাজার টাকা ঝুঁকি ভাতা দেওয়ার দাবি করেছে সম্মিলিত গার্মেন্টস শ্রমিক ফেডারেশন। সংগঠনটি গত মে মাসেই শ্রমিকদের ঝুঁকি ভাতা চেয়েছে।

সম্মিলিত গার্মেন্টস শ্রমিক ফেডারেশনের সভাপতি নাজমা আক্তার ও সাধারণ সম্পাদক নাহিদুল হাসান গতকাল সোমবার শ্রমসচিবকে দেওয়া এক চিঠিতে শ্রমিকদের ঝুঁকি ভাতা দেওয়াসহ ছয় দফা দাবি জানিয়েছেন। এ ছাড়া বিধিনিষেধের মধ্যে যেসব শ্রমিক ৫ আগস্টের মধ্যে কাজে যোগ দিতে পারবেন না, তাঁদের জন্য সবেতনে সাধারণ ছুটি দেওয়ারও আহ্বান জানিয়েছেন তাঁরা।

শ্রমিক সংগঠনটির প্রথম দাবি হচ্ছে, বিধিনিষেধের মধ্যে শ্রমিকদের আসা–যাওয়ার জন্য সংশ্লিষ্ট কারখানাগুলোকে পরিবহনের ব্যবস্থা নিশ্চিত করতে হবে। সেটি না করলে অতিরিক্ত যাতায়াত ভাতা দিতে হবে। অন্যান্য দাবি হচ্ছে কর্মস্থলে শ্রমিকদের স্বাস্থ্যবিধি কঠোরভাবে পালন করা হচ্ছে কি না, তা তদারক করতে হবে। কাজের স্থানে শ্রমিকদের মধ্যে তিন ফুট দূরত্ব নিশ্চিত করার দাবিও করেছে সংগঠনটির নেতারা।
এ ছাড়া শ্রমিক-কর্মচারীদের করোনার টিকা দেওয়ার ব্যবস্থার পাশাপাশি টিকা দেওয়ার পর সমস্যা হলে মজুরিসহ ছুটি প্রদান, বর্তমান পরিস্থিতিতে কারখানায় লে-অফ অথবা শ্রমিক ছাঁটাই না করা ও শ্রমিকদের জন্য সামাজিক নিরাপত্তাব্যবস্থা চালু করার দাবি করেছে শ্রমিক সংগঠনটি।

পোশাকশিল্পের মালিকদের দাবি মেনে কঠোর বিধিনিষেধের মধ্যেই গত রোববার থেকে কারখানা খোলার অনুমতি দেয় সরকার। গত শুক্রবার এ–সংক্রান্ত প্রজ্ঞাপন জারির পরদিন সকাল থেকে শ্রমিকেরা বিভিন্ন জেলা থেকে শিল্পাঞ্চলে ফিরতে শুরু করেন। তবে পরিবহনসংকটের কারণে দুর্ভোগে পড়েন তাঁরা। সারা দিন শ্রমিকদের ভোগান্তির খবর গণমাধ্যমে প্রকাশ হওয়ার পর রাতে সরকার লঞ্চ ও বাস চলাচলের অনুমতি দেয়।

শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরো খবর

আমাদের পেজ