1. km.mintu.savar@gmail.com : admin :
  2. coderbruh@protonmail.com : demilation :
  3. editor@biplobiderbarta.com : editor :
  4. same@wpsupportte.com : same :
শিরোনাম:
আশুলিয়ায় টিচার্স আইডিয়াল স্কুল এন্ড কলেজের শিক্ষার মান উন্নয়নে অবিভাবক সমাবেশ অনুষ্ঠিত । তাজরীন গার্মেন্টস এর মালিক দেলোয়ার হোসেনকে শাস্তি দেওয়া পরিবর্তে তাকে পুরস্কৃত করা হয়েছে বিপ্লবের জগতে এক অগ্নিসম অগ্রদূতের নাম ফিদেল কাস্ত্রো পাবনার সাঁথিয়ায় শীত যতই জেঁকে বসছে ব্যস্ততা বেড়েছে লেপ-তোষকের কারিগরের || খেলার নামে যারা জনগণের সাথে ফাউল করে তাদের লাল কার্ড দেখাতে হবে কমিউনিস্টরা ছলচাতুরী করতে পারে ভাবতে পারিনি-ইদ্রীস আলী রেকার বিলের নাম করে রিক্সা চালকদের কাছ থেকে জোর করে চাঁদা আদায় বন্ধ করতে হবে পাবনার কাশিনাথপুরে প্রধান শিক্ষক পারভীন জাহানের বিদায় সংবর্ধনা অনুষ্ঠিত || নারীর শিক্ষা ও অর্থনৈতিক সক্ষমতা সবকিছুর ঊর্ধ্বে: স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী পাবনার কাশিনাথপুরে অ্যাসোসিয়েশন অফ সৌখিন ফুটবল ক্লাব উদ্বোধন উপলক্ষে আনন্দ র‍্যালী অনুষ্ঠিত

তিউনিশিয়া উপকূলে নৌকা ডুবে বাংলাদেশিসহ ৪৩ জন নিখোঁজ

Khairul Mamun Mintu
  • প্রকাশ : রবিবার, ৪ জুলাই, ২০২১
  • ৫৮০ বার পড়া হয়েছে

লিবিয়া থেকে ইউরোপ যাওয়ার পথে তিউনিশিয়া উপকূলে নৌকা ডুবে বাংলাদেশিসহ ৪৩ জন নিখোঁজ

তিউনিশিয়ার রেড ক্রিসেন্ট জানিয়েছে, দেশটির উপকূলে অভিবাসী বহনকারী নৌকা ডুবে অন্তত ৪৩ জন নিখোঁজ রয়েছে। এদের মধ্যে বাংলাদেশিও ছিলেন বলে জানা যাচ্ছে। তবে এ সম্পর্কে বিস্তারিত কিছু এখনো জানা যায়নি।

অভিবাসীরা লিবিয়ার জুয়ারা বন্দর থেকে যাত্রা শুরু করেছিল এবং তারা ইউরোপে পাড়ি জমাতে চেয়েছিল।
তিউনিশিয়ার রেড ক্রিসেন্ট এর প্রধান মঙ্গি স্লিম জানিয়েছেন, দেশটির নৌবাহিনী আরো ৮৪ জনকে উদ্ধার করেছে।

গ্রীষ্মের সুযোগ নিয়ে অভিবাসীরা উত্তর আফ্রিকা থেকে ইউরোপে পৌঁছানোর চেষ্টা করছে।
সোমবার যাত্রা শুরু করা নৌকাটিতে বাংলাদেশ ছাড়াও মিশর, সুদান ও ইরিত্রিয়ার নাগরিক ছিলেন। নৌকাটির ইঞ্জিন বন্ধ হয়ে যাওয়ার পর সেটি ডুবে যায়।

তিউনিশিয়ার প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের তথ্য অনুযায়ী, দেশটির জারজিস বন্দরের কাছ থেকে উদ্ধার করা অভিবাসীদের বয়স তিন বছর থেকে শুরু করে ৪০ বছর পর্যন্ত।

স্থানীয় রেডিও সম্প্রচার থেকে জানা যায়, তিউনিশিয়ার রেড ক্রিসেন্ট তাদের খাবার এবং পানীয় জল সরবরাহ করেছে। একই সাথে তাদের কোভিড আইসোলেশনের জন্য কোথায় রাখার ব্যবস্থা করা যায় তা নিয়েও কাজ করছেন তারা।

ভূমধ্যসাগর পার হয়ে যারা ইউরোপে পাড়ি জমাতে চান তাদের জন্য লিবিয়া একটি পছন্দের ট্রানজিট পয়েন্ট।
তিউনিশিয়াও অন্যতম প্রধান একটি কেন্দ্র হয়ে উঠেছে এবং তারা ইউরোপীয় ইউনিয়নকে অভিবাসী সমস্যার সমাধানে আফ্রিকা অঞ্চলে দারিদ্র দূর করতে সহায়তার আহ্বান জানিয়েছে।

শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরো খবর

আমাদের পেজ