1. km.mintu.savar@gmail.com : admin :
  2. coderbruh@protonmail.com : demilation :
  3. editor@biplobiderbarta.com : editor :
  4. same@wpsupportte.com : same :
শিরোনাম:
সাভার শেখ হাসিনা জাতীয় যুব উন্নয়ন ইনস্টিটিউট কেন্দ্রে কমপিউটার প্রশিক্ষণার্থীদের মাঝে সনদ বিতরণ ও নবীনবরণ ও অনুষ্ঠিত: পাবনা জেলায় নতুন পুলিশ সুপার হিসেবে নিয়োগ পেলেন আকবর আলী মুনসী || পাবনার-সাঁথিয়ায় অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষক ও কর্মচারীর বিদায় সংবর্ধনা অনুষ্ঠিত || সাঁথিয়ার কাশিনাথপুরে বাসের ধাক্কায় ৩ জন নিহত যুক্তিসংগত কারণে আমরা এই মতবিনিময়ে যাওয়ার প্রয়োজন মনে না করায় সভায় উপস্থিত হইনি স্থায়ী মজুরি কমিশন গঠন করে জাতীয় ন্যূনতম মজুরি ২০ হাজার টাকা ঘোষণার দাবি নতুন নাটক শর্ট ফিল্ম ‘একদিন সকালে || আশুলিয়া রিপোটার্স ক্লাবের নতুন কমিটির শপথ গ্রহন অনুষ্ঠিত বাংলাদেশে দেশের অর্ধেক জনগোষ্ঠী নারীসমাজ বৈষম্য ও সহিংসতার শিকার সাঁথিয়া উপজেলার নির্বাহী অফিসার এর সাথে ইউডিসি উদ্যোক্তাদের আলোচনা অনুষ্ঠিত

তিউনিশিয়া উপকূলে নৌকা ডুবে বাংলাদেশিসহ ৪৩ জন নিখোঁজ

Khairul Mamun Mintu
  • প্রকাশ : রবিবার, ৪ জুলাই, ২০২১
  • ৪৭৬ বার পড়া হয়েছে

লিবিয়া থেকে ইউরোপ যাওয়ার পথে তিউনিশিয়া উপকূলে নৌকা ডুবে বাংলাদেশিসহ ৪৩ জন নিখোঁজ

তিউনিশিয়ার রেড ক্রিসেন্ট জানিয়েছে, দেশটির উপকূলে অভিবাসী বহনকারী নৌকা ডুবে অন্তত ৪৩ জন নিখোঁজ রয়েছে। এদের মধ্যে বাংলাদেশিও ছিলেন বলে জানা যাচ্ছে। তবে এ সম্পর্কে বিস্তারিত কিছু এখনো জানা যায়নি।

অভিবাসীরা লিবিয়ার জুয়ারা বন্দর থেকে যাত্রা শুরু করেছিল এবং তারা ইউরোপে পাড়ি জমাতে চেয়েছিল।
তিউনিশিয়ার রেড ক্রিসেন্ট এর প্রধান মঙ্গি স্লিম জানিয়েছেন, দেশটির নৌবাহিনী আরো ৮৪ জনকে উদ্ধার করেছে।

গ্রীষ্মের সুযোগ নিয়ে অভিবাসীরা উত্তর আফ্রিকা থেকে ইউরোপে পৌঁছানোর চেষ্টা করছে।
সোমবার যাত্রা শুরু করা নৌকাটিতে বাংলাদেশ ছাড়াও মিশর, সুদান ও ইরিত্রিয়ার নাগরিক ছিলেন। নৌকাটির ইঞ্জিন বন্ধ হয়ে যাওয়ার পর সেটি ডুবে যায়।

তিউনিশিয়ার প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের তথ্য অনুযায়ী, দেশটির জারজিস বন্দরের কাছ থেকে উদ্ধার করা অভিবাসীদের বয়স তিন বছর থেকে শুরু করে ৪০ বছর পর্যন্ত।

স্থানীয় রেডিও সম্প্রচার থেকে জানা যায়, তিউনিশিয়ার রেড ক্রিসেন্ট তাদের খাবার এবং পানীয় জল সরবরাহ করেছে। একই সাথে তাদের কোভিড আইসোলেশনের জন্য কোথায় রাখার ব্যবস্থা করা যায় তা নিয়েও কাজ করছেন তারা।

ভূমধ্যসাগর পার হয়ে যারা ইউরোপে পাড়ি জমাতে চান তাদের জন্য লিবিয়া একটি পছন্দের ট্রানজিট পয়েন্ট।
তিউনিশিয়াও অন্যতম প্রধান একটি কেন্দ্র হয়ে উঠেছে এবং তারা ইউরোপীয় ইউনিয়নকে অভিবাসী সমস্যার সমাধানে আফ্রিকা অঞ্চলে দারিদ্র দূর করতে সহায়তার আহ্বান জানিয়েছে।

শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরো খবর

আমাদের পেজ