1. km.mintu.savar@gmail.com : admin :
  2. coderbruh@protonmail.com : demilation :
  3. editor@biplobiderbarta.com : editor :
  4. same@wpsupportte.com : same :
শিরোনাম:
সাভার শেখ হাসিনা জাতীয় যুব উন্নয়ন ইনস্টিটিউট কেন্দ্রে কমপিউটার প্রশিক্ষণার্থীদের মাঝে সনদ বিতরণ ও নবীনবরণ ও অনুষ্ঠিত: পাবনা জেলায় নতুন পুলিশ সুপার হিসেবে নিয়োগ পেলেন আকবর আলী মুনসী || পাবনার-সাঁথিয়ায় অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষক ও কর্মচারীর বিদায় সংবর্ধনা অনুষ্ঠিত || সাঁথিয়ার কাশিনাথপুরে বাসের ধাক্কায় ৩ জন নিহত যুক্তিসংগত কারণে আমরা এই মতবিনিময়ে যাওয়ার প্রয়োজন মনে না করায় সভায় উপস্থিত হইনি স্থায়ী মজুরি কমিশন গঠন করে জাতীয় ন্যূনতম মজুরি ২০ হাজার টাকা ঘোষণার দাবি নতুন নাটক শর্ট ফিল্ম ‘একদিন সকালে || আশুলিয়া রিপোটার্স ক্লাবের নতুন কমিটির শপথ গ্রহন অনুষ্ঠিত বাংলাদেশে দেশের অর্ধেক জনগোষ্ঠী নারীসমাজ বৈষম্য ও সহিংসতার শিকার সাঁথিয়া উপজেলার নির্বাহী অফিসার এর সাথে ইউডিসি উদ্যোক্তাদের আলোচনা অনুষ্ঠিত

আজ ৫মে হেফাজতে ইসলামের তান্ডব দিবস

বিপ্লবীদের বার্তা রিপোর্ট :
  • প্রকাশ : মঙ্গলবার, ৫ মে, ২০২০
  • ১১২৯ বার পড়া হয়েছে

২০১৩ সালে আজকের এই দিনে হেফাজতে ইসলাম ঢাকার মতিঝিল, পল্টন এলাকায় তান্ডব চালিয়েছিল। মতিঝিল, পল্টন এলাকার সিপিবি অফিসে আগুন দিয়েছিল হেফাজতে ইসলাম, মতিঝিল, পল্টন এলাকার রাস্তার পাশে থাকা গাছপালা কেটে সাবাড় করেছিল। ফুটপাতের দোকান গুলোতে আগুন দিয়েছিল হেফাহতে ইসলামের কর্মীরা।

কয়েকজন ব্লগারের বিরুদ্ধে ইসলাম ধর্ম নিয়ে কটূক্তি করার অভিযোগসহ ১৩দফা দাবি তুলে সংগঠনটি এ ধরণের কর্মসূচি নিয়েছিল। ২০১৩ সালের ৫ই মে, তারা জামায়াত-শিবির এর সঙ্গে যোগ দিয়ে যে তাণ্ডব চালিয়েছে, এক কথায় এটা জঙ্গি তৎপরতা ছাড়া আর কিছুই নয় এবং বাংলাদেশসহ সারা বিশ্ব দেখলো এই ভয়াবহ তান্ডব কান্ড। এমন কি ঐ এলাকার ব্যাংক, বীমা, ব্যবসা প্রতিষ্ঠান, আবাসিক ভবন, ফুটপাথের দোকান – কিছুই তাদের হামলার বাইরে থাকেনি৷ শুধু কি তাই, তারা  ধর্মীয় বইয়ের প্রায় ৮২টি দোকান পুড়িয়ে দেওয়া হয়, সাথে পবিত্র গ্রন্থ কুরআন শরীফও। পল্টন মোড় ও সিপিবির কার্যালয়ের সামনে পুরোনো ৩৫টি বইয়ের দোকানের মধ্যে ৩টি বাদে সবগুলোই পুড়িয়ে দেওয়া হয় এবং লুটপাটও করেছিল। তারপর সরকারি ও বেসরকারি পরিবহন পুলে আগুন দেয়ায় কয়েকশো গাড়ি পুড়ে গিয়েছিল৷ এমনকি তাদের কর্মীরা পল্টন থেকে পুরো মতিঝিল এলাকার সড়ক দ্বীপের গাছগুলোও উপড়ে ফেলেছিল৷

তারা  বায়তুল মোকাররম মার্কেট ও তার আশেপাশে প্রায় ৩০০টি দোকান ভাঙচুর ও অগ্নিসংযোগ করে এবং তাতে প্রায় ১৮ কোটি টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে বলে অভিযোগ করা হয় এবং রাষ্ট্রায়ত্ত প্রতিষ্ঠান বাংলাদেশ হাউস বিল্ডিং ফাইন্যান্স করপোরেশনের (বিএইচবিএফসি) ১৮ কোটি ১৭ লাখ টাকা ও একই ইমারতে অবস্থিত জনতা ব্যাংকের ৫ কোটি টাকার ক্ষতি হয়। সেই সাথে ক্ষতিগ্রস্ত হয় সোনালী ব্যাংক, প্রিমিয়ার ব্যাংক, সিটি সেন্টার, কয়েকটি ব্যাংকের এটিএম বুথসহ বিভিন্ন স্থাপনা ও প্রতিষ্ঠানে ভাঙচুর ও অগ্নিসংযোগ করা হয়। এছাড়া হেফাজতে ইসলামের কর্মীরা এদিন অবরোধ সৃষ্টির জন্য পল্টন মোড় থেকে বিজয়নগর মোড় পর্যন্ত প্রায় ৭০টি গাছ এবং পল্টন মোড় থেকে মতিঝিল পর্যন্ত প্রায় ৩০ থেকে ৩৫টি গাছ কেটে ফেলে। ঢাকা সিটি করপোরেশনের জনসংযোগ কর্মকর্তার মতে ৫ মে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের (ডিএসসিসি) ক্ষতি হয়েছে প্রায় ৫ কোটি টাকা। এইভাবে হেফাজতে ইসলামের কর্মীরা মতিঝিল, পল্টন, জিরো পয়েন্ট, গুলিস্তান, দৈনিক বাংলার মোড় ও আশেপাশের এলাকায় বহু প্রতিষ্ঠানে ভাঙচুর ও অগ্নিসংযোগ করে ঢাকা নগরীকে নরক বানিয়ে ফেলেছিল।

শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরো খবর

আমাদের পেজ