1. km.mintu.savar@gmail.com : admin :
  2. coderbruh@protonmail.com : demilation :
  3. editor@biplobiderbarta.com : editor :
  4. same@wpsupportte.com : same :
শিরোনাম:
সাভার শেখ হাসিনা জাতীয় যুব উন্নয়ন ইনস্টিটিউট কেন্দ্রে কমপিউটার প্রশিক্ষণার্থীদের মাঝে সনদ বিতরণ ও নবীনবরণ ও অনুষ্ঠিত: পাবনা জেলায় নতুন পুলিশ সুপার হিসেবে নিয়োগ পেলেন আকবর আলী মুনসী || পাবনার-সাঁথিয়ায় অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষক ও কর্মচারীর বিদায় সংবর্ধনা অনুষ্ঠিত || সাঁথিয়ার কাশিনাথপুরে বাসের ধাক্কায় ৩ জন নিহত যুক্তিসংগত কারণে আমরা এই মতবিনিময়ে যাওয়ার প্রয়োজন মনে না করায় সভায় উপস্থিত হইনি স্থায়ী মজুরি কমিশন গঠন করে জাতীয় ন্যূনতম মজুরি ২০ হাজার টাকা ঘোষণার দাবি নতুন নাটক শর্ট ফিল্ম ‘একদিন সকালে || আশুলিয়া রিপোটার্স ক্লাবের নতুন কমিটির শপথ গ্রহন অনুষ্ঠিত বাংলাদেশে দেশের অর্ধেক জনগোষ্ঠী নারীসমাজ বৈষম্য ও সহিংসতার শিকার সাঁথিয়া উপজেলার নির্বাহী অফিসার এর সাথে ইউডিসি উদ্যোক্তাদের আলোচনা অনুষ্ঠিত

ভোলার চরফ্যানে স্বামীর খোঁজে এসে এক গৃহবধূ গণধর্ষণের শিকার

বিপ্লবীদের বার্তা রিপোর্ট :
  • প্রকাশ : বুধবার, ১৫ জানুয়ারী, ২০২০
  • ৮৯৯ বার পড়া হয়েছে

ভোলার চরফ্যানে স্বামীর খোঁজে এসে এক গৃহবধূ গণধর্ষণের শিকার হয়েছেন বলে অভিযোগ উঠেছে। গতকাল মঙ্গলবারের এ ঘটনায় চরফ্যাশন থানায় তিনজনকে আসামি করে ওই গৃহবধূ মামলা করেন। এ ঘটনায় পুলিশ দুজনকে গ্রেপ্তার করেছে। বুধবার আদালত তাঁদের কারাগারে পাঠিয়েছেন।

ওই গৃহবধূর বাড়ি কিশোরগঞ্জে। তিনি দুই সন্তানের জননী। গ্রেপ্তার দুজন হলেন চরফ্যাশন পৌরসভার ৬ নম্বর ওয়ার্ডের নয়ন মিস্ত্রি (২৩) ও মনির মাঝি (২৫)। নয়ন পেশায় রিকশাচালক। তাঁদের পাশাপাশি মোসলেহ উদ্দিন নামের আরেক ব্যক্তিকে আটক করা হয়। তবে জিজ্ঞাসাবাদ শেষে তাঁকে ছেড়ে দেয় পুলিশ। রাসেল নামের এক আসামি এখনো পলাতক বলে পুলিশ জানিয়েছে।

মামলার এজাহারে বাদী লিখেছেন, চরফ্যাশন উপজেলার এক ব্যক্তির সঙ্গে (গৃহবধূর পরিচয় প্রকাশ পাবে বলে স্বামীর নাম প্রকাশ করা হয়নি) চার থেকে পাঁচ বছর আগে তাঁর বিয়ে হয়। পোশাক কারখানায় কাজ করার সময় ঢাকায় তাঁদের পরিচয় হয়। সেই সূত্রেই বিয়ে। পরে তাঁদের দুটি সন্তান হয়। কিন্তু বিয়ের কয়েক বছরের মাথায় ওই ব্যক্তি তাঁকে ফেলে চরফ্যাশনে চলে আসেন। গৃহবধূ তাঁর খোঁজে মঙ্গলবার ঢাকা থেকে লঞ্চযোগে চরফ্যাশন উপজেলার বেতুয়া লঞ্চঘাটে নামেন। এ সময় রিকশাচালক নয়ন তাঁকে জানান, তিনি ওই ব্যক্তিকে চেনেন। এরপর নয়ন তাঁকে পৌরসভার ৬ নম্বর ওয়ার্ডের একটি বাগানবাড়িতে নিয়ে যান। সেখানে সারা দিন গৃহবধূকে আটকে রেখে সহযোগীদের নিয়ে ধর্ষণ করেন নয়ন। পরে সেখান থেকে মুক্তি পেয়ে তিনি বিষয়টি চরফ্যাশন থানা–পুলিশকে জানান।

চরফ্যাশন থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সামসুল আরেফিন বলেন, পুলিশ তাৎক্ষণিক পৌরসভার বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে দুজনকে গ্রেপ্তার করেছে। তদন্তে ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত হওয়া গেছে। মামলায় তিনজনকে আসামি করা হয়েছে। ৩ নম্বর আসামিকে পুলিশ এখনো গ্রেপ্তার করতে পারেনি। ওই গৃহবধূকে ভোলা সদর হাসপাতালে স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য পাঠিয়েছে। বুধবার এই দুজনকে আদালত কারাগারে পাঠিয়েছেন।

শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরো খবর

আমাদের পেজ