1. km.mintu.savar@gmail.com : admin :
  2. coderbruh@protonmail.com : demilation :
  3. editor@biplobiderbarta.com : editor :
  4. same@wpsupportte.com : same :

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তিতে আগের জিপিএ বহাল রাখার দাবিতে বিক্ষোভ

বিপ্লবীদের বার্তা রিপোর্ট :
  • প্রকাশ : শনিবার, ২৮ মে, ২০২২
  • ৭২ বার পড়া হয়েছে
জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তিতে আগের জিপিএ বহাল রাখার দাবিতে বিক্ষোভ-সমাবেশ করে সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্ট। বরিশাল বিএমস কলেজে আজ বরিশাল ব্রজমোহন কলেজে
জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তিতে আগের জিপিএ বহাল রাখার দাবিতে বিক্ষোভ-সমাবেশ করে সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্ট। বরিশাল বিএমস কলেজে আজ বরিশাল ব্রজমোহন কলেজে

বক্তারা বলেন, প্রতিবছর প্রায় ১০ লাখের বেশি শিক্ষার্থী উচ্চমাধ্যমিক স্তর পার করেন। পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়গুলোয় আসন সংকুলান না হওয়ায় উচ্চশিক্ষার জগতে প্রবেশের জন্য তাঁদের আশ্রয়স্থল হিসেবে সর্বাগ্রে থাকে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়। কিন্তু জিপিএর বৃদ্ধির মাধ্যমে বিপুলসংখ্যক শিক্ষার্থীদের জন্য সেই দরজা বন্ধ করে দেওয়া হচ্ছে। তাঁরা আরও বলেন, একদিকে উচ্চশিক্ষায় পর্যাপ্ত আসন নেই, অন্যদিকে জাতীয় বাজেটে খুবই নগণ্য হারে বরাদ্দ দেওয়া হয় শিক্ষা খাতে। দীর্ঘদিন ধরে শিক্ষা খাতে জাতীয় বাজেটের ২৫ শতাংশ বাজেট বরাদ্দের দাবি থাকলেও তা প্রতিবছর ১২ থেকে ১৩ শতাংশের মধ্যে সীমাবদ্ধ থাকছে। এটা সরকারের শিক্ষা সংকোচন নীতিরই বহিঃপ্রকাশ বলে মন্তব্য করেন তাঁরা।

বক্তারা বলেন, বিপুলসংখ্যক শিক্ষার্থীর ভবিষ্যৎ নিয়ে ছিনিমিনি খেলার অসৎ উদ্দেশ্যে এই নিয়ম করা হয়েছে। এটা কোনো মান ঠিক রাখার উদ্যোগ নয়, এটি একটি ছাঁটাই প্রক্রিয়া, যা ক্রমশ আরও আগ্রাসী হবে।

সমাবেশে তাঁরা আরও বলেন, উচ্চশিক্ষার মানোন্নয়নের জন্য এ পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে বলে যুক্তি দিলেও এটা গরিব ও অসচ্ছল পরিবারের শিক্ষার্থীদের জন্য এক ধরনের প্রহসন। শিক্ষা ব্যবস্থায় ধনী-গরিব, গ্রাম-শহর, নারী-পুরুষ বৈষম্য চালু রেখে, পর্যাপ্ত মানসম্মত শিক্ষক ও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান তৈরি না করে বাণিজ্যিকীকরণ অব্যাহত রেখে শুধু গ্রেড পয়েন্ট কম থাকার অজুহাত দেখিয়ে বিপুলসংখ্যক শিক্ষার্থীর ভবিষ্যৎ নিয়ে ছিনিমিনি খেলার অসৎ উদ্দেশ্যে এই নিয়ম করা হয়েছে। এটা কোনো মান ঠিক রাখার উদ্যোগ নয়, এটি একটি ছাঁটাই প্রক্রিয়া, যা ক্রমশ আরও আগ্রাসী হবে।
ছাত্র নেতারা বলেন, প্রতিবছর সব বিশ্ববিদ্যালয়ের আগেই জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি প্রক্রিয়া শুরু করে শিক্ষার্থীদের অবর্ণনীয় ভোগান্তির মধ্যে ফেলা হয় এবং তাঁদের কাছ থেকে বিপুল অঙ্কের টাকা হাতিয়ে নেওয়া হয়। তাঁরা এই ধরনের ভর্তিবাণিজ্য ও মুনাফালোভী পদক্ষেপ বন্ধের আহ্বান জানান।

সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্ট সরকারি ব্রজমোহন কলেজ শাখার সাংগঠনিক সম্পাদক হাফিজুর রহমানের সভাপতিত্ব সমাবেশে বক্তব্য রাখেন সমাজতান্ত্রিক ছাত্রফ্রন্টের কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য ও বিএম কলেজ শাখার সংগঠক বিজন সিকদার, সদস্য রেজওয়ান রেজা, মহানগর শাখার দপ্তর সম্পাদক সাইফুল ইসলাম, সরকারি মহিলা কলেজের সংগঠক অদিতি ইসলাম, বিজ্ঞান আন্দোলন মঞ্চের, সরকারি বরিশাল কলেজ শাখার সংগঠক সিফাত আকন প্রমুখ। সমাবেশ শেষে একটি মিছিল ক্যাম্পাস প্রদক্ষিণ করে।

শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরো খবর

আমাদের পেজ