1. km.mintu.savar@gmail.com : admin :
  2. coderbruh@protonmail.com : demilation :
  3. editor@biplobiderbarta.com : editor :
  4. same@wpsupportte.com : same :
শিরোনাম:
বিশ্ববাজারে ধারাবাহিকভাবে পড়ছে অপরিশোধিত তেলের দর দলীয় সরকারের অধীনে সুষ্ঠু নির্বাচন সম্ভব নয়: মুজাহিদুল ইসলাম সেলিম ইজিবাইক নিয়ে যেসব প্রশ্ন করে না গণমাধ্যম প্রয়োজন শুধু আত্মবিশ্বাস আন্তর্জাতিক কুরআন প্রতিযোগিতায় হাফেজ সালেহ আহমদ তাকরিমের তৃতীয় স্থান অর্জন || পারি ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে সুবিধাবঞ্চিত শিশুদের জন্য শিক্ষা কার্যক্রম শুরু । হামলা- মামলা- খুন করে সরকার মানুষকে ভয় দেখাচ্ছে শ্রমিকনেতাদের নামে মিথ্যা মামলা প্রত্যাহার করে রিক্সা-ভ্যান শ্রমিকদের দাবী মেনে নিন পাবনার বেড়া নতুন ভারেঙ্গা ইউনিয়নে শিয়ালের কামড়ে আহত ৪০ || সিরাজগঞ্জের উল্লাপাড়ার তরুণ যুবক রিয়ান আহমেদ নয়ন মানব সেবায় কাজ করে যাচ্ছে ।

দেশে করোনায় আবার মৃত্যু বাড়ছে-এক সপ্তাহে মৃত্যু বেড়েছে ৬১%

Biplobider Barta
  • প্রকাশ : মঙ্গলবার, ৮ ফেব্রুয়ারী, ২০২২
  • ২৩৩ বার পড়া হয়েছে
biplobiderbarta
বিপ্লবীদের বার্তা

দেশে করোনায় আবার মৃত্যু বাড়ছে। গত রোববার সকাল ৮টা থেকে গতকাল সোমবার সকাল ৮টা পর্যন্ত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় আরও ৩৮ জনের মৃত্যু হয়েছে। গত ২০ সপ্তাহের মধ্যে এক দিনে সর্বোচ্চ মৃত্যুর ঘটনা এটি।

এদিকে মাত্র এক সপ্তাহের ব্যবধানে দেশে করোনায় মৃত্যু বেড়েছে প্রায় সাড়ে ৬১ শতাংশ। গত সপ্তাহে (৩১ জানুয়ারি থেকে ৬ ফেব্রুয়ারি) দেশে করোনার সংক্রমণে মারা গেছেন ২২৬ জন। এর আগের সপ্তাহে (২৪ থেকে ৩০ জানুয়ারি) করোনায় মৃত্যু হয় ১৪০ জনের। ৩১ জানুয়ারি থেকে ৬ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত মারা যাওয়া ব্যক্তিদের মধ্যে ১৬১ জনের করোনার টিকা নেওয়া ছিল না। ৬৫ জনের করোনার টিকা নেওয়া ছিল। এর মধ্যে প্রথম ডোজ টিকা পেয়েছিলেন ২৫ জন এবং দ্বিতীয় ডোজ ৪০ জন। মৃত ব্যক্তিদের কারও করোনার বুস্টার ডোজ নেওয়া ছিল না।

ডায়াবেটিস, হৃদ্‌রোগ, উচ্চ রক্তচাপ, শ্বাসতন্ত্রের রোগের মতো দীর্ঘমেয়াদি রোগে আক্রান্ত ব্যক্তিদের ক্ষেত্রে করোনাভাইরাসে মৃত্যুর ঝুঁকি বেশি। গত সপ্তাহে করোনায় আক্রান্ত হয়ে যাঁরা মারা গেছেন, তাঁদের মধ্যে প্রায় ৫২ শতাংশের করোনার বাইরেও অন্য দীর্ঘমেয়াদি (কোমরবিডিটি) রোগ ছিল। এর মধ্যে ডায়াবেটিস, উচ্চ রক্তচাপ ও কিডনিজনিত রোগে আক্রান্ত ব্যক্তিদের মৃত্যু বেশি হয়েছে।

গত সপ্তাহে মারা যাওয়াদের মধ্যে ৬৯ শতাংশের বয়স ৬০ বছরের বেশি। কয়েক দিন ধরে করোনায় দৈনিক মৃত্যু ৩০-এর ঘরে থাকছে। এর মধ্যে গত ২৪ ঘণ্টায় যে ৩৮ জনের মৃত্যু হয়েছে, তাঁদের মধ্যে ২৮ জন পুরুষ ও ১০ জন নারী। এক দিনে এর চেয়ে বেশি মৃত্যু ছিল গত বছরের ১৯ সেপ্টেম্বর। সেদিন ৪৩ জনের মৃত্যু হয়।

দুই বছর ধরে চলা এই মহামারির সংক্রমণচিত্রে কয়েক দফা ওঠানামা দেখা গেছে। গত বছরের জুন-জুলাইয়ে দ্বিতীয় দফায় করোনার সংক্রমণ বাড়ার সময় পরিস্থিতি সবচেয়ে খারাপ আকার ধারণ করেছিল। এরপর প্রায় সাড়ে তিন মাস নিয়ন্ত্রণে থাকার পর গত ডিসেম্বরের শেষ দিকে রোগী বাড়তে শুরু করে।

দেশে বর্তমানে করোনার অতিসংক্রামক ধরন অমিক্রনের দাপট চলছে। করোনার এই ধরনের বিস্তারে মাসখানেকের মধ্যেই দেশে সংক্রমণ ও মৃত্যু কয়েক গুণ বেড়েছে। ডিসেম্বরের প্রথম দিকেও দেশে করোনা শনাক্ত ৫০০এর ঘরেই ছিল। ২০ জানুয়ারি দৈনিক শনাক্তের সংখ্যা ১০ হাজার ছাড়িয়ে যায়। ৩ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত তা ১০ হাজারের ওপরে ছিল।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের তথ্য অনুযায়ী, গত ২৪ ঘণ্টায় ৪৪ হাজার ৪৭১ জনের নমুনা পরীক্ষা করা হয়। পরীক্ষায় ৯ হাজার ৩৬৯ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। পরীক্ষার বিপরীতে রোগী শনাক্তের হার ২১ দশমিক শূন্য ৭ শতাংশ। এ নিয়ে টানা চার দিন করোনা শনাক্তের সংখ্যা ১০ হাজারের নিচে এবং শনাক্তের হার ২৫ শতাংশের নিচে রয়েছে।

২০২০ সালের ৮ মার্চ দেশে প্রথম করোনার সংক্রমণ শনাক্তের ঘোষণা দেয় সরকার। সংক্রমণের শুরু থেকে এখন পর্যন্ত দেশে মোট ১৮ লাখ ৭০ হাজার ৯০১ জনের দেহে করোনা শনাক্ত হয়। এর মধ্যে সুস্থ হয়েছেন ১৬ লাখ ১২ হাজার ৫৭ জন। মৃত্যু হয়েছে ২৮ হাজার ৬২৭ জনের। ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়েছেন ৯ হাজার ৫০৭ জন।

শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরো খবর

আমাদের পেজ