1. km.mintu.savar@gmail.com : admin :
  2. editor@biplobiderbarta.com : editor :
শিরোনাম:
দেশে করোনায় মৃত্যু বাড়ল, ৫১ জনের মৃত্যু, শনাক্ত হয়েছে এক হাজার ৯০১ জন। দেশে আগস্টের চেয়ে সেপ্টেম্বরে ডেঙ্গু রোগী বাড়ছে পোশাক রপ্তানিতে ভিয়েতনামের চেয়ে আবার এগিয়ে বাংলাদেশ প্রণোদনা ঋণ ৩৬ কিস্তিতে পরিশোধের সুবিধা চায় বিজিএমইএ পোশাক খাতের ১৬ শতাংশ শ্রমিকের কম মজুরি পাওয়ার শঙ্কায় হাসেম ফুড কারখানায় অগ্নিকাণ্ডে মালিকসহ দায়ীদের শাস্তি ও ক্ষতিপূরণের দাবি শ্রমিকদের ন্যূনতম মজুরী ২১ হাজার টাকা নির্ধারণসহ দশ দফা দাবীতে সাংবাদিক সম্মেলন শক্তি ফাউন্ডেশনের উদ্দ্যোগে পাবনা- কাশিনাথপুরে করোনা সচেতনতায়  মাস্ক বিতরণ: হাসেম ফুড কারখানায় আরও একটি খুলিসহ কঙ্কাল ও হাড় উদ্ধার গার্মেন্ট শ্রমিকদের সুরক্ষায় ৫০ ইউনিয়নের যৌথ বিবৃতি

মিয়ানমারের জান্তা আসিয়ানের অস্ত্রবিরতি প্রস্তাবে রাজি

বিপ্লবীদের বার্তা // Biplobider Barta
  • প্রকাশ : সোমবার, ৬ সেপ্টেম্বর, ২০২১
  • ৪৪ বার পড়া হয়েছে

আসিয়ানের দেওয়া বছরের শেষাবধি অস্ত্রবিরতির প্রস্তাবে রাজি হয়েছে মিয়ানমারের জান্তা সরকার। মিয়ানমারে মানবিক সহায়তা নিশ্চিতে আসিয়ানের পক্ষ থেকে এই প্রস্তাব দেওয়া হয়েছিল। আসিয়ানের এক মুখপাত্রের বরাত দিয়ে জাপানের সংবাদ সংস্থা কয়োদো এই তথ্য নিশ্চিত করেছে।

রয়টার্সের এক প্রতিবেদনে বলা হয়, গত ফেব্রুয়ারিতে মিয়ানমারে সামরিক অভ্যুত্থানের পর সেখানে সহিংসতা বন্ধের চেষ্টা করে আসছিল অ্যাসোসিয়েশন অব সাউথইস্ট এশিয়ান ন্যাশনস (আসিয়ান)। মিয়ানমারে সামরিক সরকার ক্ষমতায় আসার পর সহিংসতায় শতাধিক মানুষ প্রাণ হারিয়েছেন।

আসিয়ান মুখপাত্র এরেওয়ান ইউসুফ মিয়ানমারের সামরিক সরকারের পররাষ্ট্রমন্ত্রী উন্না মং লুইনের সঙ্গে এক ভিডিও আলোচনায় যুক্ত হয়ে অস্ত্রবিরতির প্রস্তাব দেন। তাঁর প্রস্তাবে মিয়ানমারের সামরিক সরকার রাজি হয়েছে বলে সংবাদমাধ্যমকে তিনি নিশ্চিত করেন।

গতকাল এক প্রতিবেদনে বলা হয়, এরেওয়ান বলেন, এটি রাজনৈতিক অস্ত্রবিরতি নয়। মানবিক সহায়তা প্রদানকারীদের সুরক্ষা ও নিরাপত্তা নিশ্চিত করতেই এই অস্ত্রবিরতি।

এরেওয়ান আরও বলেন, ‘অস্ত্রবিরতির বিষয়ে আমি যা বলেছি, তাতে দ্বিমত করেনি তারা।’

প্রতিবেদনে বলা হয়, এরেওয়ান পরোক্ষভাবে তাঁর প্রস্তাবটি মিয়ানমারের সামরিক শাসনবিরোধী দলগুলোর কাছেও পাঠিয়েছিলেন। এ বিষয়ে রয়টার্সের পক্ষ থেকে জান্তা সরকারের এক মুখপাত্রের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি সাড়া দেননি।

গত শনিবার রয়টার্সকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে এরেওয়ান বলেন, অক্টোবরের শেষের দিকে তিনি যে সফরের আশা করেছিলেন, এর শর্তাবলি নিয়ে তিনি এখনো সেনাবাহিনীর সঙ্গে আলোচনা করছেন এবং ক্ষমতাচ্যুত নেতা অং সান সু চির সঙ্গে দেখা করার সুযোগও চেয়েছেন।

এরেওয়ান বলেন, ‘আমরা এখন যা চাই, তা হচ্ছে সব দল যেন সহিংসতা বন্ধে অস্ত্রবিরতিতে সম্মত হয়। বিশেষ করে মানবিক সহায়তা প্রদানে সহযোগিতার জন্য।’

আসিয়ানভুক্ত দেশগুলো মিয়ানমারের জন্য আট মিলিয়ন ডলার সাহায্যের প্রতিশ্রুতি দিয়েছে বলে এরেওয়ান জানান।

রক্তপাতহীন অভ্যুত্থানের মাধ্যমে ১ ফেব্রুয়ারি মিয়ানমারের নেত্রী অং সান সু চির নেতৃত্বাধীন ন্যাশনাল লিগ ফর ডেমোক্রেসির (এনএলডি) সরকারের পতন ঘটায় সেনাবাহিনী। গ্রেপ্তার করা হয় সু চিসহ এনএলডির শীর্ষ নেতাদের। এরপর থেকেই দেশটিতে বিক্ষোভ চলছে। সু চির দল ন্যাশনাল লিগ ফর ডেমোক্রেসি গত বছরের নভেম্বরে নিরঙ্কুশ বিজয় অর্জন করে। তবে সেনাবাহিনী নির্বাচনে কারচুপির অভিযোগ তুলেছে।

শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরো খবর

আমাদের পেজ