1. km.mintu.savar@gmail.com : admin :
  2. editor@biplobiderbarta.com : editor :
শিরোনাম:
দেশে করোনায় মৃত্যু বাড়ল, ৫১ জনের মৃত্যু, শনাক্ত হয়েছে এক হাজার ৯০১ জন। দেশে আগস্টের চেয়ে সেপ্টেম্বরে ডেঙ্গু রোগী বাড়ছে পোশাক রপ্তানিতে ভিয়েতনামের চেয়ে আবার এগিয়ে বাংলাদেশ প্রণোদনা ঋণ ৩৬ কিস্তিতে পরিশোধের সুবিধা চায় বিজিএমইএ পোশাক খাতের ১৬ শতাংশ শ্রমিকের কম মজুরি পাওয়ার শঙ্কায় হাসেম ফুড কারখানায় অগ্নিকাণ্ডে মালিকসহ দায়ীদের শাস্তি ও ক্ষতিপূরণের দাবি শ্রমিকদের ন্যূনতম মজুরী ২১ হাজার টাকা নির্ধারণসহ দশ দফা দাবীতে সাংবাদিক সম্মেলন শক্তি ফাউন্ডেশনের উদ্দ্যোগে পাবনা- কাশিনাথপুরে করোনা সচেতনতায়  মাস্ক বিতরণ: হাসেম ফুড কারখানায় আরও একটি খুলিসহ কঙ্কাল ও হাড় উদ্ধার গার্মেন্ট শ্রমিকদের সুরক্ষায় ৫০ ইউনিয়নের যৌথ বিবৃতি

পাকিস্তানে করাচিতে রাসায়নিক কারখানায় অগ্নিকাণ্ডে ১৬ জনের মৃত্যু

বিপ্লবীদের বার্তা
  • প্রকাশ : শুক্রবার, ২৭ আগস্ট, ২০২১
  • ৭৯ বার পড়া হয়েছে

কারখানার বেশির ভাগ জানালা ও ছাদের দরজা বন্ধ ছিল, কারাখানাটিতে প্রবেশ ও বের হওয়ার একটিই পথ

পাকিস্তানের সবচেয়ে বড় শহর করাচিতে রাসায়নিক একটি কারখানায় অগ্নিকাণ্ডে ১৬ জনের মৃত্যু হয়েছে। অগ্নিকাণ্ডের সময় কারখানার বেশির ভাগ জানালা ও ছাদের দরজা বন্ধ ছিল। তিনতলাবিশিষ্ট এই ভবনের নিরাপত্তা নিয়ে এখন প্রশ্ন উঠেছে।

পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিসের কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, শহরের পূর্ব দিকে কারখানাটির অবস্থান। আজ শুক্রবার অগ্নিকাণ্ডের সময় কারখানার বেশির ভাগ জানালা বন্ধ ছিল। কারখানার দ্বিতীয় তলায় আটকা পড়ে বেশির ভাগ শ্রমিকের মৃত্যু হয়। তিনতলা ভবনটির নিচতলায় আগুনের সূত্রপাত।

করাচির পূর্বাঞ্চলের ডেপুটি ইন্সপেক্টর জেনারেল সাকিব ইসমাইল মেমন রয়টার্সকে বলেন, আগুনে অন্তত ১৬ জনের মৃত্যু হয়েছে।

বেসরকারি টেলিভশন চ্যানেলের ফুটেজে কারখানার ওপর তলাগুলো থেকে ধোঁয়ার কুণ্ডলী বের হতে দেখা যায়। কারাখানাটিতে প্রবেশ ও বের হওয়ার একটিই পথ।

ফায়ার সার্ভিসের প্রধান কর্মকর্তা মুবিন আহমেদ বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেল জিও টিভিকে জানান, কারখানার ছাদের দরজাও বন্ধ থাকায় উদ্ধারকাজ চালাতে বেশ বেগ পেতে হয়।

২০১২ সালের সেপ্টেম্বরে দেশটির একটি পোশাক কারখানায় আগুন লেগে ২৬০ জনের বেশি মানুষ দগ্ধ হয়েছিলেন।

শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরো খবর

আমাদের পেজ