1. km.mintu.savar@gmail.com : admin :
  2. editor@biplobiderbarta.com : editor :
শিরোনাম:
দেশে করোনায় মৃত্যু বাড়ল, ৫১ জনের মৃত্যু, শনাক্ত হয়েছে এক হাজার ৯০১ জন। দেশে আগস্টের চেয়ে সেপ্টেম্বরে ডেঙ্গু রোগী বাড়ছে পোশাক রপ্তানিতে ভিয়েতনামের চেয়ে আবার এগিয়ে বাংলাদেশ প্রণোদনা ঋণ ৩৬ কিস্তিতে পরিশোধের সুবিধা চায় বিজিএমইএ পোশাক খাতের ১৬ শতাংশ শ্রমিকের কম মজুরি পাওয়ার শঙ্কায় হাসেম ফুড কারখানায় অগ্নিকাণ্ডে মালিকসহ দায়ীদের শাস্তি ও ক্ষতিপূরণের দাবি শ্রমিকদের ন্যূনতম মজুরী ২১ হাজার টাকা নির্ধারণসহ দশ দফা দাবীতে সাংবাদিক সম্মেলন শক্তি ফাউন্ডেশনের উদ্দ্যোগে পাবনা- কাশিনাথপুরে করোনা সচেতনতায়  মাস্ক বিতরণ: হাসেম ফুড কারখানায় আরও একটি খুলিসহ কঙ্কাল ও হাড় উদ্ধার গার্মেন্ট শ্রমিকদের সুরক্ষায় ৫০ ইউনিয়নের যৌথ বিবৃতি

২০২১-২২ অর্থবছরের বাজেটে নির্মাণ শ্রমিকদের জন্য সামাজিক সুরক্ষা খাতে অর্থ বরাদ্দের দাবি

মোঃ রাকিবুল হাসান
  • প্রকাশ : শনিবার, ২৯ মে, ২০২১
  • ১১৮ বার পড়া হয়েছে

২০২১-২২ অর্থবছরের বাজেটে নির্মাণ শ্রমিকদের জন্য সামাজিক সুরক্ষা খাতে অর্থ বরাদ্দের দাবি জানিয়েছে আশুলিয়া থানা সড়ক নির্মাণ শ্রমিক ইউনিয়ন।

২৮ মে শুক্রবার বিকেলে আশুলিয়ার ইউনিক বাসস্ট্যান্ডে এক মানববন্ধনে নেতৃবৃন্দ এ দাবি জানান।

নবীয়াল ফকির সভাপতিত্বে নদের চান মিয়া পরিচালনায় বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ ট্রেড ইউনিয়ন কেন্দ্র টিইউসি কেন্দ্রীয় কমিটির অর্থ সম্পাদক শ্রমিক নেতা কাজী রুহুল আমিন, সাভার আশুলিয়া আঞ্চলিক কমিটির সভাপতি খায়রুল মামুন মিন্টু সাধারন, সম্পাদক মনজুরুল ইসলাম মন্জু, গার্মেন্টস শ্রমিক ট্রেড ইউনিয়ন কেন্দ্র সাভার আশুলিয়া আঞ্চলিক কমিটির সভাপতি সাইফুল আল মামুন, আশুলিয়া থানা রিক্সা ও ভ্যান শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি আ: মজিদ, সাধারণ সম্পাদক আলতাফ হোসেন, যুগ্ন সম্পাদক মামুন দেওয়ান, আলম পারভেজ, আশুলিয়া থানা সড়ক নির্মান শ্রমিক ইউনিয়নের সহ সভাপতি আফজাল হোসেন প্রমুখ শ্রমিক নেতা।

নেতৃবৃন্দ বলেন, বর্তমান বাংলাদেশের অন্যতম প্রধান বৃহৎ শিল্প নির্মাণ শিল্প। দেশব্যাপী ছড়িয়ে ছিটিয়ে থাকা ও প্রবাসী শ্রমিকসহ ৮০ লাখের বেশি শ্রমিক এই সেক্টরে কাজ করে। এই সেক্টরে কাজ করতে গিয়ে অনেকে আহত বা নিহত হন। অনেকেই দুর্ঘটনায় সারাজীবনের জন্য পঙ্গুত্বও বরণ করেন।

তারা আরও বলেন, যে শ্রমিকরা দেশ গড়ার কারিগর তাদের সামাজিক নিরাপত্তার জন্য স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তীর এই সময়ে রাজপথে আন্দোলন করতে হয়। অন্যদিকে শ্রমিক কর্মচারীদের ওপর শোষণ বঞ্চনা দিন দিন বৃদ্ধি পাচ্ছে। একটি শ্রেণি টাকার পাহাড় গড়ে তুলছেন। শ্রমিকদের মজুরি বৈষম্যের কারণে কষ্টকর জীবনযাপন করতে হচ্ছে।
এ সময় সংগঠনটির পক্ষ থেকে নির্মাণ শ্রমিকদের কর্মস্থলে নিরাপত্তা পেনশন স্কিম, রেশনিং ব্যবস্থা চালু, কর্মস্থলে দুর্ঘটনায় নিহত শ্রমিকদের পরিবারকে কমপক্ষে ১৫ লাখ টাকা ক্ষতিপূরণ, শ্রম আইন সংশোধন করে ক্ষতিপূরণ অন্তর্ভুক্তকরণ, আসন্ন অর্থ বছর ২০২১-২২ বাজেটে অর্থ বরাদ্দ করে নির্মাণ শ্রমিকদের ১২ দফা দাবি উত্থাপন করা হয়।

শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরো খবর

আমাদের পেজ