1. km.mintu.savar@gmail.com : admin :
  2. editor@biplobiderbarta.com : editor :
শিরোনাম:
পবিত্র কোরআন ও হাদীসের আলোকে ওয়াদা ভঙ্গ করার ভয়াবহ পরিণাম !! প্রয়াসের উদ্যোগে সাঁথিয়ার কাশিনাথপুরে করোনা ভাইরাস বিষয়ে চিকিৎসা পরামর্শ ও ভলেন্টারি সেবা চালু । মোট আক্রান্ত হলেন ৬৫,৭৬৯ জন, আর মৃত্যু হয়েছে ৮৮৮ জনের। দেশের ১৩ জেলা আংশিক এবং ৫০ জেলা সম্পূর্ণ লকডাউন ঘোষণা শ্রমিক ছাঁটাইয়ের ঘোষনার প্রতিবাদে গার্মেন্টস শ্রমিক অধিকার আন্দোলনের সংবাদ সম্মেলন ট্রাম্পের নির্দেশে পাঠানো সেনা তাড়ালেন মেয়র মুরিয়েল বোসার যেভাবে শিশুদের স্কুলে ফেরাল ডেনমার্ক রাজধানীর দুই এলাকা দিয়ে কাল শুরু হচ্ছে জোলা ভিত্তিক লকডাউনের কাজ শ্রমিক ছাঁটাই করা হলে, আপনিও ছাঁটাই হয়ে যাবেন’- মন্টু ঘোষ গত ২৪ ঘণ্টায় আরও ৩৫ জনের মৃত্যু, শনাক্ত ২৬৩৫ জন

শ্রমিক ছাঁটাইয়ের ঘোষনার প্রতিবাদে গার্মেন্টস শ্রমিক অধিকার আন্দোলনের সংবাদ সম্মেলন

বিপ্লবীদের বার্তা রিপোর্ট :
  • প্রকাশ : শনিবার, ৬ জুন, ২০২০
  • ৬৫ বার পড়া হয়েছে

করোনা ভাইরাসের মহামারীতে লে-অফ ও শ্রমিক ছাঁটাই করা যাবে না। সরকারের নির্দেশনা থাকাবস্থায় বিজিএমইএ এর সভাপতি কর্তৃক শ্রমিক ছাঁটাইয়ের ঘোষনার প্রতিবাদে গার্মেন্টস শ্রমিক অধিকার আন্দোলনের সংবাদ সম্মেলন

বিশ্বের ন্যায় করোনা ভাইরাস আজ বাংলাদেশেও যখন মহামারী আকার ধারন করেছে তখন আমাদের দেশের গার্মেন্টস মালিক সংগঠন বিজিএমইএর ভূমিকা মানবতাকে কুঠারাঘাত করে চলেছে। ৮ মার্চ বাংলাদেশে করোনা ভাইরাস সনাক্ত হওয়ার পর ২৬ মার্চ ২০২০ থেকে পর্যায়ক্রমে সারাদেশে লকডাউন ও সাধারন ছুটি ঘোষনা করা হয়। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার নির্দেশনা স্বাস্থ্যবিধি প্রতিপালন না করে গার্মেন্টস কারখানায় উৎপাদনের প্রয়োজনে ঝুঁকির মধ্য দিয়ে শ্রমিকদের কাজ করতে বাধ্য করা হয়। এরই মধ্যে এপ্রিল মাসে শ্রমিকদের মজুরি কার্যত ৪০% কর্তন করে দেয়া হয়। মে মাসে শ্রমিকদের বাৎসরিক প্রাপ্য বোনাসও পরে দেয়ার কথা বলে অর্ধেক কর্তন করা হয়। মে মাসের ২৫ তারিখে ঈদ উদযাপন হলেও শ্রমিকদের মে মাসের বেতন জুন মাসে দেয়া হবে বলে ঝুলিয়ে রাখা হলো।

ইতিমধ্যে ত্রিপক্ষীয় সভায় এবং সরকারী নির্দেশনা অনুযায়ী করোনা চলাকালীন কোন শ্রমিক ছাঁটাই বা কারখানা লে-অফ হলে সুদমুক্ত ৫০০০ কোটি টাকার ঋণ প্রদান করা হবে না বলে প্রচার করা হলো। ওদিকে ৫০০০ কোটি টাকা দিয়ে শ্রমিকদের এপ্রিল মাসের বেতন দেয়া হলে আরও ২০ হাজার কোটি টাকার শিল্প ঋণের ঘোষনা দেয়া হল। এতো সুবিধাপ্রাপ্তির পরে বিজিএমইএ এর সভাপতি ০৪/০৬/২০২০ইং তারিখে বলেন জুন মাস থেকে শ্রমিক ছাঁটাই করা হবে। যেটি অত্যন্ত অমানবিক ও অযৌক্তিক। এটি কোন স্বাভাবিক মানুষের বক্তব্য হতে পারে না। কোন সুস্থ্য স্বাভাবিক মানুষ করোনার মহামারী চলাকালীন এভাবে শ্রমিকের পেটে লাথি দিতে পারে না। উল্লেখ্য যে, পৃথিবীর সব দেশে শ্রমিকদের সহযোগিতা করা হচ্ছে। ফ্রান্সে শ্রমিকদের ৮০% বেতন, ইউকেতে ৮০% বেতন, জার্মানীতে ৭৮% বেতন, ফিলিপাইনে ৭০%, আমেরিকার শ্রমিকদের ৬ মাসের বেতনের নিশ্চয়তা সরকারীভাবে প্রদান করা হয়েছে। অথচ আমাদের দেশের রপ্তানী খাতের শ্রমিকদের দুর্ভোগের মধ্যে ফেলে রাখা হয়েছে।

এমতাবস্থায় বিজিএমইএ এর বক্তব্য শ্রমিক, শিল্প স্বার্থ ও জাতীয় স্বার্থবিরোধী বিধায় তার বক্তব্য প্রত্যহার করে নেয়া দরকার বলে আমরা মনে করছি। আগামী ৭ দিনের মধ্যে বক্তব্য প্রত্যাহার করা না হলে সারাদেশে বৃহত্তর আন্দোলনের কর্মসূচী ঘোষনা করা হবে।

১ বিজিএমইএ কর্তৃক জুন মাসে শ্রমিক ছাঁটাইয়ের বক্তব্য প্রত্যাহার করতে হবে।
২। করোনা চলাকালীন কোন শ্রমিক ছাঁটাই বা লে-অফ করা যাবে না।
৩। করোনায় আক্রান্তদের চিকিৎসা এবং মৃতদের একজীবনের সমপরিমান ক্ষতিপূরন দিতে হবে। একই সঙ্গে শ্রমিকদের জন্য করোনা সনাক্তকরন দ্রুত ও সহজতর করন এবং আক্রান্ত শ্রমিকদের যথাসময়ে হাসপাতালে ভর্তি ও সুচিকিৎসার ব্যবস্থা করতে হবে। আক্রান্ত শ্রমিকদের প্রকৃত সংখ্যার তালিকা প্রকাশ করতে হবে।
৪। সকল শ্রমিকদের রেশন কার্ডের মাধ্যমে চাল, ডাল, তেল ও নিত্যপ্রয়োজনীয় দব্য প্রদানের জন্য রেশনিং ব্যবস্থা চালু করতে হবে।
৫। শ্রমিকদের নামে দায়েরকৃত মিথ্যা মামলা ও পুলিশী হয়রানী বন্ধ করতে হবে।

কর্মসূচী
১। আগামী ১০ জুন সারাদেশে গার্মেন্টস শিল্পাঞ্চলে প্রতিবাদ সভা।
২। বিজিএমইএর সভাপতির বক্তব্য প্রত্যাহার করা না হলে ১২ জুন শুক্রবার সারাদেশে অনলাইনের মাধ্যমে প্রতিবাদ বিক্ষোভ কর্মসূচী শেষে পুনরায় সকল শ্রমিক সংগঠনের সমন্বয়ে বৃহত্তর কর্মসূচী ঘোষনা করা হবে।

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন এড. মাহবুবুর রহমান ইসমাইল, সমন্বয়ক, গার্মেন্টস শ্রমিক অধিকার আন্দোলন ও সভাপতি,বাংলাদেশ টেক্সটাইল গার্মেন্টস শ্রমিক ফেডারেশন, কেন্দ্রীয় কমিটি, মোশরেফা মিশু, সভাপতি, গার্মেন্টস শ্রমিক ঐক্য ফোরাম, তাসলিমা আখ্তার লিমা, সভাপ্রধান, বাংলাদেশ গার্মেন্ট শ্রমিক সংহতি, মোহাম্মদ ইয়াসিন, সভাপতি, বাংলাদেশ ওএসকে গার্মেন্টস টেক্সটাইল শ্রমিক ফেডারেশন, শামিম ইমাম, নির্বাহী উপদেষ্টা, বাংলাদেশ গার্মেন্টস শ্রমিক মুক্তি আন্দোলন, রাজু আহমেদ, সাধারণ সম্পাদক, গার্মেন্টস শ্রমিক ফেডারেশন, শামসুজ্জোহা, সভাপতি, গার্মেন্টস শ্রমিক সভা, মাহমুদ হোসেন, সভাপতি, বিপ্লবী গার্মেন্টস শ্রমিক সংহতি, এএএম ফয়েজ হোসেন, সভাপতি, বাংলাদেশের সোয়েটার গার্মেন্টস শ্রমিক ফেডারেশন, বিপ্লব ভট্টাচার্য, সংগঠক, গার্মেন্টস শ্রমিক আন্দোলন, অরবিন্দু বেপারী বিন্দু, সভাপতি, বিপ্লবী গার্মেন্ট শ্রমিক ফেডারেশন।

শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরো খবর