1. km.mintu.savar@gmail.com : admin :
  2. editor@biplobiderbarta.com : editor :
শিরোনাম:
দেশে করোনায় মৃত্যু বাড়ল, ৫১ জনের মৃত্যু, শনাক্ত হয়েছে এক হাজার ৯০১ জন। দেশে আগস্টের চেয়ে সেপ্টেম্বরে ডেঙ্গু রোগী বাড়ছে পোশাক রপ্তানিতে ভিয়েতনামের চেয়ে আবার এগিয়ে বাংলাদেশ প্রণোদনা ঋণ ৩৬ কিস্তিতে পরিশোধের সুবিধা চায় বিজিএমইএ পোশাক খাতের ১৬ শতাংশ শ্রমিকের কম মজুরি পাওয়ার শঙ্কায় হাসেম ফুড কারখানায় অগ্নিকাণ্ডে মালিকসহ দায়ীদের শাস্তি ও ক্ষতিপূরণের দাবি শ্রমিকদের ন্যূনতম মজুরী ২১ হাজার টাকা নির্ধারণসহ দশ দফা দাবীতে সাংবাদিক সম্মেলন শক্তি ফাউন্ডেশনের উদ্দ্যোগে পাবনা- কাশিনাথপুরে করোনা সচেতনতায়  মাস্ক বিতরণ: হাসেম ফুড কারখানায় আরও একটি খুলিসহ কঙ্কাল ও হাড় উদ্ধার গার্মেন্ট শ্রমিকদের সুরক্ষায় ৫০ ইউনিয়নের যৌথ বিবৃতি

শোকসভায় নেতৃবৃন্দ শ্রমিকদের অধিকার আদায়ের সংগ্রাম অগ্রসর করার মাধ্যমেই আমরা চিরকাল স্মরণ রাখবো শ্রমিকনেতা এ. কে. এম মহিবুল্লাহকে

Km Mintu
  • প্রকাশ : রবিবার, ১৬ ফেব্রুয়ারী, ২০২০
  • ৩৭৪ বার পড়া হয়েছে

শোকসভায় নেতৃবৃন্দ,
শ্রমিকদের অধিকার আদায়ের সংগ্রাম অগ্রসর করার মাধ্যমেই আমরা চিরকাল স্মরণ রাখবো শ্রমিকনেতা এ. কে. এম মহিবুল্লাহক

১৫ ফেব্রুয়ারি ২০২০, শনিবার শহীদ তাজুল মিলনায়তনে ট্রেড ইউনিয়ন কেন্দ্র’র উদ্যোগে সংগঠনের প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকে এদেশের শ্রমিক আন্দোলনে গুরুত্বপূর্ণ ভ‚মিকা পালন করে আসা প্রখ্যাত শ্রমিকনেতা এ. কে. এম মহিবুল্লাহর স্মরণসভা অনুষ্ঠিত হয়।

বাংলাদেশ ট্রেড ইউনিয়ন কেন্দ্র’র সভাপতি সহিদুল্লাহ চৌধুরীর সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন প্রবীণ শ্রমিকনেতা আব্দুস সালাম খান, বাংলাদেশ ট্রেড ইউনিয়ন কেন্দ্র’র সাধারণ সম্পাদক ডা. ওয়াজেদুল ইসলাম খান, সহ-সভাপতি মাহবুবুল আলম, সহ-সভাপতি আ. রাজ্জাক, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আবুল কালাম আজাদ, দপ্তর সম্পাদক সাহিদা পারভীন শিখা, হাফিজুল ইসলাম এবং পরিবারের পক্ষ থেকে একমাত্র সন্তানের জামাতা জসিমউদ্দিন চৌধুরী। শোকসভা পরিচালনা করেন বাংলাদেশ ট্রেড ইউনিয়ন কেন্দ্র’র অর্থ সম্পাদক কাজী মো. রুহুল আমিন।
শোকসভায় বক্তারা বলেন, শ্রমিকনেতা এ. কে. এম মহিবুল্লাহ এ দেশের শ্রমিক আন্দোলনের নিবেদিত প্রাণ ছিলেন। তিনি একদিকে শ্রমিকদের অধিকার প্রতিষ্ঠা অন্যদিকে শ্রমিকশ্রেণির মুক্তির লক্ষ্যে শোষণমুক্ত সমাজ প্রতিষ্ঠা করতে ট্রেড ইউনিয়ন কেন্দ্র’র প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকে মৃত্যুর পূর্ব পর্যন্ত এদেশের শ্রমিক আন্দোলনে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রেখেছেন। প্রায় অর্ধ শতাব্দি যাবৎ কেন্দ্রীয় দায়িত্ব পালন করেছেন। তিনি দীর্ঘদিন পানি উন্নয়ন বোর্ড কর্মচারী ইউনিয়নের নির্বাচিত সাধারণ সম্পাদক এবং পানি উন্নয়ন শ্রমিক ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করেছেন। নেতৃবৃন্দ বলেন, দিনদিন শ্রমিকদের অধিকার খর্ব করা হচ্ছে বিধায় শ্রমিকদের মধ্যে লেগে পড়ে থেকে সংগঠিত করা ও আন্দোলন অগ্রসর অতীব জরুরি। এ জরুরি সংগ্রামে এ. কে. এম মহিবুল্লাহ চিরঞ্জীব হয়ে থাকবেন আমাদের মাঝে।

শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরো খবর

আমাদের পেজ