1. km.mintu.savar@gmail.com : admin :
  2. editor@biplobiderbarta.com : editor :
শিরোনাম:
পবিত্র কোরআন ও হাদীসের আলোকে ওয়াদা ভঙ্গ করার ভয়াবহ পরিণাম !! প্রয়াসের উদ্যোগে সাঁথিয়ার কাশিনাথপুরে করোনা ভাইরাস বিষয়ে চিকিৎসা পরামর্শ ও ভলেন্টারি সেবা চালু । মোট আক্রান্ত হলেন ৬৫,৭৬৯ জন, আর মৃত্যু হয়েছে ৮৮৮ জনের। দেশের ১৩ জেলা আংশিক এবং ৫০ জেলা সম্পূর্ণ লকডাউন ঘোষণা শ্রমিক ছাঁটাইয়ের ঘোষনার প্রতিবাদে গার্মেন্টস শ্রমিক অধিকার আন্দোলনের সংবাদ সম্মেলন ট্রাম্পের নির্দেশে পাঠানো সেনা তাড়ালেন মেয়র মুরিয়েল বোসার যেভাবে শিশুদের স্কুলে ফেরাল ডেনমার্ক রাজধানীর দুই এলাকা দিয়ে কাল শুরু হচ্ছে জোলা ভিত্তিক লকডাউনের কাজ শ্রমিক ছাঁটাই করা হলে, আপনিও ছাঁটাই হয়ে যাবেন’- মন্টু ঘোষ গত ২৪ ঘণ্টায় আরও ৩৫ জনের মৃত্যু, শনাক্ত ২৬৩৫ জন

রিক্সা ভ্যান শ্রমিকদের ওপর চাঁদাবাজি , হয়রানি-নির্যাতনের প্রতিবাদে শ্রমিক সমাবেশ

Km Mintu
  • প্রকাশ : শুক্রবার, ১৪ ফেব্রুয়ারী, ২০২০
  • ২৩৫ বার পড়া হয়েছে

আশুলিয়া থানা রিক্সা ও ভ্যান শ্রমিক ইউনিয়ন এর উদ্যোগে আজ ১৪ ফেব্রুয়ারি শুক্রবার, বিকাল ৪ ঘটিকায় জামগড়া ফ্যান্টাসি কিংডমের সামনে রিক্সা ভ্যান শ্রমিকদের ওপর চাঁদাবাজি, হয়রানি-নির্যাতনের প্রতিবাদে শ্রমিক সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।

আশুলিয়া থানা রিক্সা ও ভ্যান শ্রমিক ইউনিয়ন এর সভাপতি আব্দুল মজিদের সভাপতিত্ব, বাংলাদেশে ট্রেড ইউনিয়ন কেন্দ্র সাভার-আশুলিয়া আঞ্চলিক কমিটির সাধারণ সম্পাদক মনজুরুল ইসলাম এর পরিচালনায় সমাবেশে বক্তব্য রাখেন, বাংলাদেশে ট্রেড ইউনিয়ন কেন্দ্রীয় কমিটির নেতা ইদ্রীস আলী, বাংলাদেশে ট্রেড ইউনিয়ন কেন্দ্র সাভার-আশুলিয়া আঞ্চলিক কমিটির সভাপতি খাইরুল মামুন মিন্টু, আশুলিয়া থানা রিক্সা ও ভ্যান শ্রমিক ইউনিয়ন এর সাধারণ সম্পাদক আলতাব হোসেন, আশুলিয়া থানা নির্মাণ শ্রমিক ইউনিয়ন এর সভাপতি নবীয়াল ফকীর। আশুলিয়া থানা রিক্সা ও ভ্যান শ্রমিক ইউনিয়ন এর যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক মামুন দেওয়ান।

সমাবেশে খাইরুল মামুন মিন্টু বলেন, আশুলিয়া সহ সারাদেশে লক্ষ লক্ষ শ্রমিক বিকল্প কোন কাজ না পাওয়ার কারণে তারা সামান্য জমানো টাকা ও বিভিন্ন সমিতি থেকে লোন নিয়ে এই অটো-রিক্সা কিনেছে। এই রিক্সাতে যা চড়ে তারা যেমন গরীব, এই রিক্সা যারা চালায় তারাও গরীব অথচ এই রিক্সা শ্রমিকদের বিকল্প কাজের ব্যবস্থা না করে তাদের রিক্সা চালাতে বাধা দেওয়া হচ্ছে, তাদের উপর রাস্তার মোড়ে মোড়ে নির্যাতন, চাঁদাবাজি, হয়রানী করা হচ্ছে। রেকার বিলের নাম করে তাদের কাছ থেকে হাজার হাজার টাকা হাতিয়ে নেওয়া হচ্ছে। চাঁদা না দিলে রিক্সার ব্যাটারি খুলে নেওয়া হচ্ছে, রিক্সা হায়ওয়ে থানায় নিয়ে আটকিয়ে রাখা হচ্ছে, পরে তা গোপনে বিক্রি করে দেওয়া হচ্ছে। তিনি আরো বলেন, অলি-গলির রাস্তা এতটায় খারাপ যে মানুষের চলাচল অনুপযোগী অথচ তা ঠিক করার কোন উদ্যোগ নেই। মোড়ে মোড়ে নির্যাতন, চাঁদাবাজি, হয়রানী বন্ধ করে রিক্সা ও ভ্যান চালকদের ড্রাইভিং লাইসেন্স প্রদান, রিক্সার কাগজ পত্র প্রদান, রিক্সা ও ভ্যান চলাচলের জন্য আলাদা লেন ও স্টন্ডে স্টন্ডে রিক্সা স্টন্ড নির্মানের তিনি দাবী জানান।

শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরো খবর